সৃজনশীল প্রশ্ন তৈরি করার নিয়ম । How to make Creative Question

সৃজনশীল প্রশ্ন প্রণয়নের কলাকৌশল

এ পদ্ধতিতে সর্বপ্রথম একটি উদ্দীপক ( Stem ) তৈরি করতে হবে । মনে রাখতে হবে- উদ্দীপকে কোনোভাবেই কোনো প্রশ্নের উত্তর থাকবে না ; বরং উদ্দীপকটি শিক্ষার্থীকে উত্তরদানে সাহায্য করবে । অর্থাৎ উদ্দীপকটি শুধু শিক্ষার্থীর উদ্দীপনা জাগাবে , শিক্ষার্থীকে ভাবতে শেখাবে । উদ্দীপক তৈরির সময় অবশ্যই যা করতে হবে-

সৃজনশীল প্রশ্ন তৈরি করার নিয়ম । How to make Creative Question

১ . পাঠ্যপুস্তকের কোনো অংশ / অনুচ্ছেদকে সরাসরি উদ্দীপক হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না। উদ্দীপক হবে মৌলিক ( unique )।

২ .  পাঠ্যপুস্তকের বিষয়বস্তুর আলোকে পত্র - পত্রিকা , সমালোচনাগ্রন্থ , ম্যাগাজিন , চিত্র , ডায়াগ্রাম , সারণি , চার্ট , রেডিও বা টেলিভিশনে প্রচারিত কোনো প্রতিবেদন , প্রামাণ্য চিত্র , বিজ্ঞাপন ইত্যাদির সাহায্যে উদ্দীপক তৈরি করতে হবে ।

৩ . উদ্দীপকের ভাষা হবে সহজ - সরল , আকর্ষণীয় ও সংক্ষিপ্ত । অপ্রয়োজনীয় শব্দ / বাক্য পরিহার করতে হবে ।

৪ . পাঠ্যপুস্তকের কোনো একটি অধ্যায়ের আলোকে অথবা একাধিক অধ্যায় সমন্বয় করেও উদ্দীপক তৈরি করা যাবে ।

৫ . উন্নতমানের উদ্দীপক তৈরি করতে চাইলে একজন শিক্ষককে সর্বপ্রথম পাঠ্যবই ভালোভাবে কয়েকবার পড়তে হবে । তারপর প্রতিটি অধ্যায়ের উদ্দেশ্য ও শিখন ফল বুঝতে হবে । এরপর ঐ অধ্যায়ে বর্ণিত বিভিন্ন দিক ( concept ) বা ভাব ( theme ) খুঁজে বের করে তার যেকোনো একটি বা একাধিক ভাবের আলোকে কাল্পনিক উদ্দীপক তৈরি করতে হবে । যেমন ‘ বিড়াল ’ রচনায় ধনী - দরিদ্রের বৈষম্য , ধনীর সম্পদ গড়ে তোলা , ধনীর কার্পণ্য , দরিদ্রদের ক্ষুধায় জ্বালা , ধনীর ধনে দরিদ্রদের অধিকার , ক্ষুধা নিবারণের জন্য চুরি করে খাওয়া (এইচ,এস,সি বাংলা সাহিত্য) ইত্যাদি দিক ( concept ) ফুটে উঠেছে । এ রচনা থেকে কোনো সৃজনশীল প্রশ্ন তৈরি করতে চাইলে আগে এখানকার যেকোনো এক বা একাধিক দিক ( concept ) , ভাব ( theme ) নির্বাচন করে তার আলোকে উদ্দীপক তৈরি করতে হবে । যেমন-

যে মৃত্যু - ক্ষুধার জ্বালায় এই পৃথিবী টলমল করছে , ঘুরপাক খাচ্ছে তার গ্রাস থেকে বাঁচবার সাধ্য কারুরই নেই । তোমরা মনে রেখো , তোমরা আমায় উদ্ধারের জন্য এখানে আসনি , তোমাদের সে মন্ত্র আমি কোনোদিনই শিখাইনি , তোমরা তোমাদের উদ্ধার কর- সেই হবে আমারও উদ্ধার । তোমাদের মুক্তির সঙ্গে সঙ্গে আমিও মুক্ত হব । [ তথ্যসূত্র : মৃত্যু - ক্ষুধা- কাজী নজরুল ইসলাম]

৬ . মনে রাখতে হবে- উদ্দীপক তৈরি করে তারপর প্রশ্ন করা যায় অথবা প্রশ্ন তৈরি করে তারপরও উদ্দীপক তৈরি করা যায় ।

৭ . উদ্দীপকটি ব্যক্তিকেন্দ্রিক ( Personified ) হলে ভালো । তাতে প্রয়োগ ও উচ্চতর দক্ষতার মানসম্পন্ন প্রশ্ন করা যায় । উদ্দীপক তৈরি হলে শিক্ষার্থীর চিন্তন দক্ষতার চারটি স্তর যাচাই করার জন্য চারটি প্রশ্ন করতে হবে ।

( ক ) জ্ঞানমূলক প্রশ্ন / জ্ঞান দক্ষতা যাচাইমূলক প্রশ্ন ( Knowledge )  মান -১
( খ ) অনুধাবনমূলক প্রশ্ন / অনুধাবন দক্ষতা যাচাইমূলক প্রশ্ন ( Comprehension )  মান -২
( গ ) প্রয়োগমূলক প্রশ্ন / প্রয়োগ দক্ষতা যাচাইমূলক প্রশ্ন ( Application )  মান -৩
( ঘ ) উচ্চতর দক্ষতামূলক প্রশ্ন / উচ্চতর চিন্তন দক্ষতা যাচাইমূলক প্রশ্ন ( Higher Order )  মান -৪
পরবর্তী পোস্ট পূর্ববর্তী পোস্ট
No Comment
আপনার মন্তব্য জানান
comment url