ভাব সম্প্রসারণ: উত্তম নিশ্চিন্তে চলে অধমের সাথে , তিনিই মধ্যম যিনি চলেন তফাতে

উত্তম নিশ্চিন্তে চলে অধমের সাথে, তিনিই মধ্যম যিনি চলেন তফাতে

ভাব সম্প্রসারণ: উত্তম নিশ্চিন্তে চলে অধমের সাথে , তিনিই মধ্যম যিনি চলেন তফাতে

মূলভাব : সমাজে উত্তম ও অধম হিসেবেই মানুষের শ্রেণিকরণ করা হয়ে থাকে , কিন্তু মধ্যম শ্রেণিরও যে অস্তিত্ব রয়েছে তাদের কথা কেউই খেয়াল করে না ।

সম্প্রসারিত ভাব : উত্তম ও অধম দুটি শ্রেণির মানুষ সমাজে অহরহ দৃষ্ট হয় । উত্তম শ্রেয়তর । অধম অবশ্যই অবজ্ঞার শিকার । বিদ্যা - বুদ্ধি ও স্বভাব চরিত্রের গুণে অনেকেই উত্তমরূপে আত্মপ্রকাশ করে । উত্তমের সঙ্গ সকলেরই কাম্য । উত্তম ব্যক্তি অন্যদের নিকট অনুকরণীয় আদর্শও বটে । উত্তম ব্যক্তি সমহিমায় উদ্ভাসিত । অপরদিকে অধম হলো হতভাগ্য । শিক্ষাদীক্ষা তথা বুদ্ধি ও প্রজ্ঞায় সে হীন । সভাব চরিত্রের বিকাশও তার ক্ষেত্রে প্রত্যাশিত নয় । সেজন্য সে আদর্শ নয় । উত্তম ব্যক্তির সঙ্গে অধম ব্যক্তি একান্ত নির্ভাবনায় চলতে পারে । অধম ব্যক্তির দ্বারা উত্তম ব্যক্তি প্রভাবিত হয় না । বরং অধমই উত্তমের চরিত্রগুণে কখনো কখনো আলোকিত হয়ে উঠে । উত্তম ও অধমের এ দু ’ কাতারের বাইরে আরেকটি শ্রেণি রয়েছে , যারা কারো অনুসরণ করেন না , কাউকে আকৃষ্টও করান না । তারা নিভৃতচারী , মধ্যপন্থার অনুসারী । মূলত মধ্যম শ্রেণিই নিরাপদ দূরত্ব অবলম্বনকারী সাধারণ মানুষ । এদের দ্বারাই বৃহত্তর সমাজ গঠিত । উত্তম সংখ্যায় কম এবং বলতে গেলে দুর্লভও বটে । অপরদিকে অধমও সংখ্যায় খুব বেশি নয় । মধ্যম শ্রেণির জীবন তুলনামূলকভাবে বৈচিত্র্যহীন এবং সাদামাটা । তবে জীবনে এ মধ্যপন্থা - ই শ্রেষ্ঠ পন্থা । উত্তম হবার পথ দুরূহ । অধম হওয়াও জীবনের কাম্যতার মধ্যে পড়ে না । তাই আমাদের মধ্যম শ্রেণির মধ্যেই আত্মবিকাশের চেষ্টা চালাতে হবে । মধ্যম পন্থা সব সময়ই নিরাপদ ও নির্ভরযোগ্য । উত্তম হতে না পারার কারণে হতাশাগ্রস্ত হয়ে অধমত্ব বরণ করার প্রয়োজন নেই । সাধারণ মধ্যম পন্থাতেই আত্মমুক্তির স্বাদ খোঁজা বিবেচকের কাজ ।

মন্তব্য : মধ্যম পন্থা তুলনামূলকভাবে বৈচিত্র্যহীন ও সাদামাটা হলেও জীবনে এই পন্থা অবলম্বন করা শ্রেয় । এতে থাকে না উত্তম হবার আকাঙ্খা ও অধম হওয়ার হতাশা ।

ভিডিও দেখুন



আরো পড়ুন:
পরবর্তী পোস্ট পূর্ববর্তী পোস্ট
No Comment
আপনার মন্তব্য জানান
comment url