বন্যেরা বনে সুন্দর , শিশুরা মাতৃক্রোড়ে | ভাবসম্প্রসারণ

বন্যেরা বনে সুন্দর , শিশুরা মাতৃক্রোড়ে

বন্যেরা বনে সুন্দর , শিশুরা মাতৃক্রোড়ে ভাবসম্প্রসারণ

মূলভাব : প্রকৃতির রাজ্যে সবার জন্যে স্থান সুনির্দিষ্ট রয়েছে । প্রকৃতি যাকে যেখানে রেখেছে , যার যা দায়িত্ব নির্দিষ্ট করেছে প্রত্যেকের উচিত সে স্থানে থেকে সুনির্দিষ্ট দায়িত্ব পালন করা ।

সম্প্রসারিত ভাব : যার যে পরিবেশ তাকে সেই পরিবেশেই যথার্থ মানায় । প্রত্যেকের নিজ বৈশিষ্ট্য তার নিজস্ব পরিবেশেই সঠিকভাবে রূপায়িত হয়ে ওঠে । বনের অধিবাসীরা বনে বাস করে ; তারা বন্য জীবনাচরণে অভ্যস্ত । বনের প্রকৃতির মধ্যেই তাদের সুন্দর মানায় । যদি তাদের বন থেকে সরিয়ে এনে লোকসমাজে প্রতিষ্ঠিত করা হয় তবে তা মোটেই শোভন হবে না । তেমনি মায়ের কোলে শিশুকে যেমন সুন্দর লাগে অন্য কারও কোলে শিশুকে তত সুন্দর মানায় না । কারণ , মা ছাড়া অন্যের কোলে শিশুর স্বাভাবিক সৌন্দর্য ও সরলতা এবং মায়ের অকৃত্রিম মাতৃত্ব সৌন্দর্য বিকশিত হবে । ” তাই পরিবেশই জিনিসকে সুন্দর করে তোলে এবং এর অভাবে অনেক সুন্দর জিনিসও কুৎসিত বলে মনে হয় বিকশিত হতে পারে না । এটাই জাগতিক নিয়ম । কথায় আছে- “ যে যেখানে আছে তাকে সেখানেই থাকতে দাও । তবেই তাদের স্বাভাবিক সৌন্দর্য বিকশিত হবে। তাই পরিবেশের জিনিস কে সুন্দর করে তোলে এবং এর অভাবে অনেক সুন্দর জিনিসও কুৎসিত বলে মনে হয়।

তেমনি সামাজিক জীবনে যার যেখানে থাকবার কথা অথবা যার যা দায়িত্ব তার তাতেই নিবিষ্ট থাকা উচিত । রাজনীতিকের কাজ রাষ্ট্র পরিচালনা করা । কিন্তু সেনাবাহিনী যখন ব্যারাক ছেড়ে রাষ্ট্রক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হয় তখন রাজনীতির স্বাভাবিক বিকাশ ও গতি রুদ্ধ হয় । যার যা দায়িত্ব সে তা পালন করলে সমাজ সব দিক থেকে লাভবান হয় ।

মন্তব্য : প্রত্যেক বস্তুই তার স্বাভাবিক অবস্থানে সুন্দর । বস্তুর স্বাভাবিক অবস্থান নষ্ট করলে তার ফল কল্যাণকর হয় না ।

ভিডিও দেখুন



আরো পড়ুন:
পরবর্তী পোস্ট পূর্ববর্তী পোস্ট
No Comment
আপনার মন্তব্য জানান
comment url