ভাব সম্প্রসারণ: কীর্তিমানের মৃত্যু নাই | মানুষ বাঁচে তাহার কর্মের মধ্যে বয়সের মধ্যে নহে

মানুষ বাঁচে তাহার কর্মের মধ্যে বয়সের মধ্যে নহে

ভাব সম্প্রসারণ: কীর্তিমানের মৃত্যু নাই | মানুষ বাঁচে তাহার কর্মের মধ্যে বয়সের মধ্যে নহে
অথবা ,
👉🏻জীবনের মূল্য আয়ুতে নহে , কল্যাণ পূত কর্মে।
👉🏻কীর্তিমানের মৃত্যু নাই।

মূলভাব : মানবজীবনে কর্মই মূল্যায়নের মানদণ্ড , বয়স বড় কথা নয় । কাজের মহিমাই মানুষকে যুগ - যুগান্তরে বাঁচিয়ে রাখে ।

সম্প্রসারিত ভাব : জ্ঞানীদের মতে , কর্মই জীবন । কর্মহীন জীবনের কোনো মূল্য নেই । কাজের ভালো - মন্দই মানুষকে ভালো কিংবা মন্দ হিসেবে চিহ্নিত করে । সৎকর্মের সাধনায় জীবন উৎসর্গ করতে মহান প্রভু সৃষ্টির সেরা জীব হিসেবে আমাদের দুনিয়াতে প্রেরণ করেছেন । তাই নিরন্তর কর্মপ্রবাহে নিজেকে সম্পৃক্ত রাখাই মানবজীবনের পরম লক্ষ্য হওয়া উচিত । মানবজীবনের প্রকৃত সার্থকতা কর্ম - সাফল্যের ওপর নির্ভরশীল , দীর্ঘায়ুর ওপর নয় । মানুষ স্মরণীয় ও বরণীয় হয়ে থাকে তার কীর্তির মাঝে , আর সে কীর্তি মানুষের কর্ম - সাধনার ফল । মানুষের আয়ুষ্কাল সীমিত । একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্যে মানুষ পৃথিবীতে আসে এবং সে সময়সীমা পার হওয়ার সাথে সাথে পৃথিবী থেকে বিদায় নেয় । আয়ু যত দীর্ঘই হোক না কেন , কারও দ্বারা যদি মানুষের কোনো কল্যাণ সাধিত না হয় বা সে মানুষের জন্যে কল্যাণকর কোনো কর্মের স্বাক্ষর রেখে যেতে ব্যর্থ হয় , তাহলে তার কথা কেউ কোনোদিন মনে রাখে না । পক্ষান্তরে , আয়ু যত কমই হোক না কেন , যদি কেউ মানুষের কল্যাণ ও শাশ্বত সুন্দরের জন্যে কীর্তিগাথা রেখে যেতে সক্ষম হন তাহলে যুগে যুগে মানুষ তাঁতে স্মরণ করে । মানুষের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় সিক্ত হন । মরেও তিনি বেঁচে থাকেন মানুষের হৃদয়ের মণিকোঠায় । পৃথিবীর ইতিহাসে এমন অনেক মানুষ আছেন মৃত্যু যাঁদের নিঃশেষ করতে পারে নি । হযরত মুহাম্মদ ( স ) , হযরত আবুবকর ( রা ) , কাজী নজরুল ইসলাম , টলস্টয় , শেক্সপীয়র , এ . কে . ফজলুল হক - এঁদের কেউ আজ আর বেঁচে নেই । কিন্তু এঁরা আমাদের প্রতিদিনের চিন্তা - চেতনায় জীবন্ত হয়ে আছেন । যুগে যুগে কীর্তিমানেরা মানবকুলের প্রেরণার উৎস হয়ে আছেন । তাঁদের কর্মপ্রেরণায় পৃথিবীর অগ্রযাত্রা অব্যাহত রয়েছে ।

মন্তব্য : সৃষ্টি রহস্যে মানুষের বয়স সীমাবদ্ধ । তাই বয়স মানুষের জীবনের সার্থকতার মাপকাঠি নয় , মহৎ কীর্তির মাধ্যমেই মানুষের জীবন সার্থক ও সফল হয় ।

ভিডিও দেখুন



আরো পড়ুন:
পরবর্তী পোস্ট পূর্ববর্তী পোস্ট
No Comment
আপনার মন্তব্য জানান
comment url