ভাবসম্প্রসারণ: প্রয়োজনীয়তাই উদ্ভাবনের জনক

প্রয়োজনীয়তাই উদ্ভাবনের জনক

ভাবসম্প্রসারণ: প্রয়োজনীয়তাই উদ্ভাবনের জনক

মূললভাব : প্রয়োজন বা চাহিদার অনুভূতি থেকেই মানুষ তিলে তিলে সভ্যতাকে গড়ে তুলেছে । প্রয়োজনের চাপ না থাকলে পৃথিবীর কর্মকোলাহল থেমে যেত । সভ্যতার সীমাহীন প্রয়োজনের তাগিদেই মানুষ আবিষ্কার করেছে নতুন নতুন পন্থা , উপকরণ ও পণ্য । তাই চাহিদা বা প্রয়োজন না থাকলে মানবজীবন হয়ে পড়ত শ্রীহীন ও স্থবির।

সম্প্রসারিত ভাব : পরিশ্রম যেমন সৌভাগ্যের প্রসূতি তেমনি প্রয়োজন উদ্ভাবনের জনক । আজকের সভ্যতা এবং বৈজ্ঞানিক আবিষ্কারগুলো মানুষের প্রয়োজনের দাবিতেই অর্জিত হয়েছে । জীবনের জন্যে অনেক কিছু প্রয়োজন । আর এ প্রয়োজন মেটানোর তাগিদেই মানুষকে অনেক কিছু উদ্ভাবন করতে হয় । মানুষের প্রয়োজন যদি না থাকত তবে সে উদ্ভাবন করা থেকে সম্পূর্ণ বিরত থাকত । ফলে আজ আমরা এ আধুনিক সভ্যতায় উপনীত হতে পারতাম না । মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব । মানুষের শ্রেষ্ঠত্ব মূলত তার বিচিত্রমুখী কর্মসাধনায় নিহিত । সম্পূর্ণ অপরিচিত , অনভিজ্ঞ ও অসহনীয় প্রাকৃতিক পরিবেশে মানুষের জন্ম । জন্মের পরই তাকে নানাবিধ অভাব - অভিযোগের সম্মুখীন হতে হয়েছে । একটার পর একটা অভাব মানুষকে জর্জরিত করে তুলেছিল । বৈরি প্রকৃতি জীবনধাবণকে অনিশ্চিত ও অসহনীয় করে তুলেছিল । শ্বাপদসঙ্কুল অরণ্য , অসহনীয় প্রাকৃতিক পরিবেশ থেকে আত্মরক্ষা ও সুস্থ স্বাভাবিক জীবনযাপনের প্রয়োজনে মানুষকে নিরলস সংগ্রাম করতে হয়েছে ৷ আহার , বাসস্থান ও আত্মরক্ষার ক্রমবর্ধমান তাগিদে মানুষের ত্যাগ - তিতিক্ষা , সাধনা , সংগ্রাম , বুদ্ধি ও মেধার পরিচর্যা ধীরে ধীরে তাকে প্রতিকূল অবস্থা থেকে উত্তরণে সাহায্য করেছে ।

মন্তব্য : মানুষের ' প্রয়োজন ' সংখ্যায় অসীম । একটি প্রয়োজন মিটে গেলেই আরেকটি মাথাচাড়া দিয়ে উঠে । তাই মানুষ নিত্য নতুন উদ্ভাবনের নেশায় চালিয়ে যাচ্ছে নিরলস প্রচেষ্টা

ভিডিও দেখুন



আরো পড়ুন:
পরবর্তী পোস্ট পূর্ববর্তী পোস্ট
No Comment
আপনার মন্তব্য জানান
comment url