দাও ফিরে সে অরণ্য , লও এ নগর | ভাবসম্প্রসারণ

দাও ফিরে সে অরণ্য , লও এ নগর

দাও ফিরে সে অরণ্য , লও এ নগর | ভাবসম্প্রসারণ

মূলভাব : নাগরিক জীবনে মানুষ যন্ত্রে পরিণত হয়েছে । শহরের চার দেয়ালের মধ্যে বন্দি থেকে মানুষ আজ হাঁপিয়ে উঠেছে । তাই আজ তাদের কাম্য অতীতের সেই শান্ত জীবন । ফেলে আসা অতীতের গ্রাম্য জীবন তাকে শুধু তাড়িত করে ।

সম্প্রসারিত ভাব : আজকের বৈজ্ঞানিক উন্নতির পরিপ্রেক্ষিতে যে আধুনিক সভ্যতার বিকাশ ঘটেছে তাতে জীবন হয়ে উঠেছে দুর্বিষহ । অতীতে আমাদের দেশ ছিল ছায়া সুনিবিড় শাস্তির নীড় । সেখানে সবুজ বনানীকে কেন্দ্র করে প্রকৃতির পরিবেশের মধ্যে মানুষের দৈনন্দিন জীবন ছিল সুখে ভরপুর । সেখানে একে অন্যের সাথে প্রেমডোরে বাঁধা ছিল । স্নেহ , মায়া - মমতা কোনোকিছুরই কমতি ছিল না । পল্লির নির্মল বাতাস সেখানকার মানুষগুলোকে রাখত সুস্থ ও সজীব । কিন্তু আজ নগরকেন্দ্রিক সভ্যতা সবুজ বনানীকে নির্বিচারে নিধন করে সেখানে ইট , সিমেন্ট , পাথরের কৃত্রিম শোভা বর্ধন করে রচনা করেছে মানবজাতির কবর । শহরায়নের সর্বনাশা স্রোতে আজ নির্বিচারে কাটা হচ্ছে বৃক্ষ । এভাবে বিরামহীন বন উজাড়ের ফলে প্রাকৃতিক পরিবেশে নেমে আসছে মরুভূমির শূন্যতা । তাতে মানুষের অস্তিত্ব হুমকির সম্মুখীন হয়ে পড়েছে । ধ্বংসের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করার ক্ষেত্রে বনের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ । আজ এ বনের গুরুত্ব সম্পর্কে মানুষ বুঝতে পেরেছে । তাই বৃক্ষ রোপণের মাধ্যমে প্রাকৃতিক ভারসাম্য বজায় রাখতে তৎপর হচ্ছে । আমাদের প্রাণ ধারণকারী অক্সিজেন গ্যাসসহ বাসগৃহ , খাদ্য , ওষুধ - পথ্য পর্যন্ত এ বৃক্ষেরই অকৃপণ অবদান । বৃক্ষই ক্ষতিকর কার্বন ডাইঅক্সাইড শোষণ করে পৃথিবীকে মানুষের বাসযোগ্য করে রাখছে । বৃক্ষরাজিই পারে ঊষর মরুভূমির মাঝে প্রাণের সঞ্চার করে শ্যামল , সিগ্ধ , স্নেহময়ী জননীর ভূমিকা পালন করতে । সবুজ - শ্যামল আদিপ্রাণ বৃক্ষরাজি প্রকৃতির সন্তান মানুষকে আজ কাছে পেতে চায় । আধুনিক বিজ্ঞানভিত্তিক সভ্যতা দান করেছে নানা ধরনের বিলাস সামগ্রী , কিন্তু দিতে পারে নি নির্মল সুখ ও শান্তির একটু পরশ । সে কারণেই মানুষ অশান্ত পরিবেশ হতে মুক্তি লাভের আশায় অতীতের সেই অরণ্য তথা সুখ ও শান্তির পরিবেশ ফিরে যেতে চায় ।

মন্তব্য : নগরীর কর্মব্যস্ততায় মানুষ আজ ক্লান্ত । তাই অরণ্যের সুশীতল ছায়াতলে দেহ জুড়াতে মন আজ উন্মুখ হয়ে আছে ।

ভিডিও দেখুন



আরো পড়ুন:
পরবর্তী পোস্ট পূর্ববর্তী পোস্ট
No Comment
আপনার মন্তব্য জানান
comment url